করোনা : সিলেট কারাগারে আসামির মৃত্যু, লাশ নেয়নি পরিবার!



ফাইল ছবি।
স্টাফ রির্পোটার, সিলেট থেকে :

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে থাকা হত্যা মামলার আসামি আহমদ হোসেন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পর তার মৃতদেহ পরিবারের সদস্যরা গ্রামের বাড়িতে নেয় নি। তবে সিলেট সিটি করপোরেশনের সহযোগীতায় ‘কারা’ কতৃপক্ষ সিলেটের মানিকপীর টিলা কবরস্থানে তার লাশ দাফন সম্পন্ন করেছে।

‘গতকাল বুধবার নিহতের লাশ দাফনের সময় পরিবারের সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই তার লাশ দাফন করা হয়। কারন তার আত্মীয়-স্বজনরা সামাজিক হেনাস্থার ভয়ে গ্রামের বাড়িতে লাশ না নিয়ে মানিকপীর টিলায় লাশ দাফন করেন।’

জানা গেছে, আহমদ হোসেন (৫৫) কানাইঘাট উপজেলার দক্ষিণ বাণীগ্রাম ইউনিয়নের ঘড়াই গ্রামের বাসিন্দা। একটি হত্যা মামলায় গত ৫ মার্চ তিনি কারাগারে যান। এরপর গত ৮ মে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে পাঠানো হয় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে তার শরীরে করোনার উপসর্গ ধরা পড়লে তাকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গত ৯ মে তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়, ১১ মে ফলাফলে পজিটিভ আসে। কিন্তু এর আগেই গত ১০ মে তিনি মারা যান। পরে তার মরদেহ ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়।

এদিকে, ওই হাজতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার ঘটনায় তিনি কারাগারে যে ওয়ার্ডে ছিলেন, সে ওয়ার্ডের ৮৩ হাজতিকে লকডাউনে রাখা হয়েছে। এছাড়া কারাগারের ২৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারটি নিশ্চিত করেছেন সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মো. আব্দুল জলিল ও জেলার মুজিবুর রহমান।

শেয়ার করুন!