কমিটিবিহীন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বেতন-ভাতা উত্তোলনের বাধা কাটল



সিএনবাংলাদেশ অনলাইন :

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সব স্কুল কলেজ অফিস বন্ধ ঘোষণা রয়েছে। স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। এ সময়ে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটি বা গভর্নিংবডির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে। চলমান লকডাউনে পুনরায় কমিটি গঠন করা সম্ভব হয়নি। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে কমিটিবিহীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা উত্তোলনে অন্তবর্তীকালীন সময়ের জন্য নির্দেশনা দিয়েছে সরকার।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং জেলা প্রশাসকের প্রতিস্বাক্ষরে বেতন-ভাতা উত্তোলন করা যাবে বলে জানিয়েছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড এবং মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড।

গত ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং ২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটির কারণে কমিটিবিহীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক-কর্মচারীরা বেতন-ভাতা উত্তোলন করতে পারছিলেন না।

এতে বলা হয়, এই সময়ে যে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটি বা ক্ষেত্রমতে গভর্নিং বডির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে বা পুনঃ ম্যানেজিং কমিটি গঠন করা সম্ভব হয়নি অথবা কমিটির কার্যক্রম স্থগিত আছে, সে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীর বেতন-ভাতা উত্তোলনের স্বার্থে প্রতিষ্ঠানের বিলে সূত্রে উল্লেখিত নির্দেশনা অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট উপজেলার ক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং জেলা সদরের ক্ষেত্রে জেলা প্রশাসক-এর প্রতিস্বাক্ষরে বেতন-ভাতা উত্তোলন করা যাবে।

মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের আওতাধীন সব মাদরাসা প্রধানদের গত ১৪ মে এবং শিক্ষা বোর্ডের প্রধানদের ২০ এপ্রিল এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন!