৯৮ রানে শচীনকে আউট করে দুঃখ পেলেন শোয়েব আখতার



স্পোর্টস ডেস্ক :

সেই সময় বাইশ গজে দারুণ লড়াই জমত শোয়েব আখতার আর শচীন টেন্ডুলকারের। ২০০৩ সালে সেঞ্চুরিয়নে বিশ্বকাপের গ্রুপ ম্যাচে শচীনকে ৯৮ রানে আউট করেছিলেন শোয়েব। সেই ম্যাচে সাঈদ আনোয়ারের সেঞ্চুরিতে ৭ উইকেটে ২৭৩ তুলেছিল পাকিস্তান। জবাবে শচীনের ৯৮ রানের বিস্ফোরক ইনিংস জয়ের সুবাস পায় ভারত। তবে শচীনকে সেঞ্চুরি বঞ্চিত করে নাকি খুব কষ্ট হয়েছিল শোয়েব আখতারের।

বিশ্বকাপে এখনও ভারতের বিপক্ষে জিততে পারেনি পাকিস্তান। সেই জয়ের পেছনে ছিল শচীনের বড় ভূমিকা। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি লাইভ সেশনে রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেছেন, ‘সেদিন ৯৮ রানে শচীনকে আউট করে বিষণ্ণ হয়ে পড়েছিলাম। সেট খুব স্পেশাল একটা ইনিংস ছিল। সেঞ্চুরি করা উচিত ছিল শচীনের। আমিও চেয়েছিলাম শচীন যেন সেঞ্চুরি করে। যে বাউন্সারে শচীন আউট হয়েছিল, সেই বলটাকে আগের মতো ছক্কা মারতে দেখলেই খুশি হতাম।’

বিশ্বকাপের সেই ইনিংসটি শচীনের ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা। শোয়েবের বাউন্সারে ইউনিস খানকে ক্যাচ দিয়ে আউট হন শচীন। ৭৫ বলের ইনিংসে ছিল ১২টি চার এবং ১টি ছক্কা। তার ব্যাটিং দাপটেই ২৬ বল বাকি থাকতে ৬ উইকেটে জিতে যায় ভারত। ২০১১ বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে শচীনের আরও এক গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস আছে। শচীনের জন্যই ফাইনালে উঠেছিল ভারত। তারপর দ্বিতীয়বারের মতো জিতেছিল বিশ্বকাপ।

শেয়ার করুন!