সিসিক মেয়র আরিফের ব্যক্তিগত সহকারীসহ করোনা শনাক্ত ৩৩



সিলেট প্রতিনিধি :

সিলেট বিভাগের ৪টি জেলায় শনিবার নতুন করে পুলিশসহ আরও ৩৩ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ১৮ জন, সুনামগঞ্জ জেলায় ৬ জন, মৌলভীবাজার জেলায় ৫ জন এবং হবিগঞ্জ জেলায় ৩ জন রয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়রের ব্যক্তিগত সহকারীও রয়েছেন।

সুত্র জানায়, শনিবার সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ ল্যাব,শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাব এবং ঢাকার ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় মোট ৩৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক হিমাংশু লাল রায় জানান, হাসপাতালের ল্যাবে শনিবার ১৮০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। তাদের মধ্যে ১৮ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। আক্রান্তরা সিলেট জেলার বাসিন্দা। আক্রান্তদের মধ্যে গোলাপগঞ্জের ৫জন, সদর উপজেলায় ৬জন, জকিগঞ্জের ৩জন, বিশ্বনাথের ২জন, জৈন্তাপুরের ১জন ও দক্ষিণ সুরমার ১জন রয়েছেন।

সিলেট নগরে আক্রান্তদের মধ্যে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর ব্যক্তিগত সহকারী (পিএ) মুহিবুল ইসলাম ইমন রয়েছেন। শনিবার ওসমানী মেডিকেল কলেজ পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার পর ১৮ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তাদের মধ্যে ইমন একজন। ইমনের করোনা আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিদায়ক রায় চৌধুরী। এছাড়া আক্রান্তদের মধ্যে সিলেটের বিশ্বনাথ থানার এক পুলিশ সদস্যও রয়েছেন। একইদিন সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জে ছয়জন, হবিগঞ্জে তিনজন ও মৌলভীবাজারে পাঁচজনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

এদিকে শনিবার শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে ৯১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। সেখানে ছয়টি পজেটিভ আসে। বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জিয়াউল ফারুক জয় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। শনাক্ত হওয়া ছয়জনই সুনামগঞ্জ জেলার বাসিন্দা।

মৌলভীবাজার জেলায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত ছয়জনের মধ্যে একজন ব্যাংক কর্মকর্তা আছেন বলে জানান সিভিল সার্জন ডা. তওহীদ আহমদ।

শেয়ার করুন!