আমিরাত ও মালদ্বীপে আটকে পড়া থেকে দেশে ফিরলেন ৩শ’ বাংলাদেশি



প্রবাস ডেস্ক :

কভিড-১৯-এর কারণে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই ও মালদ্বীপের রাজধানী মালে থেকে ফিরিয়ে আনল ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের দুটি বিশেষ ফ্লাইট। হতকাল বৃহস্পতিবার দুবাই থেকে ১৪০ জন যাত্রী নিয়ে দুপুর ১২টা ৬ মিনিটে এবং মালে থেকে ১৬০ জন যাত্রী নিয়ে সন্ধ্যা ৬টা ৩৫ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুটি বিশেষ ফ্লাইট অবতরণ করে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মালদ্বীপে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের দেশে ফিরিয়ে আনতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে বিশেষ ফ্লাইটগুলো পরিচালনা করেছে।

কভিড-১৯-এর প্রাদুর্ভাবের কারণে গত প্রায় চার মাস বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অনেক বাংলাদেশি আটকে আছে। বাংলাদেশ, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মালদ্বীপ সরকারের সহযোগিতায় দুবাই ও মালে থেকে আজ আটকে পড়া বাংলাদেশি নাগরিকদের ফিরিয়ে আনল ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস।

ইতিমধ্যে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস মালে ও দুবাই ছাড়াও কভিড-১৯-এর সময়ে চেন্নাই, কলকাতা, দিল্লি, লাহোর, কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, আবুধাবি ও ইউরোপের অন্যতম গন্তব্য ফ্রান্সের প্যারিসে বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনা করেছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কভিড-১৯ মহামারির সময়ে আটকে পড়া বাংলাদেশি নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে ও বিদেশি নাগরিকদের নিজ দেশে পৌঁছে দিতে ৫৫টি স্পেশাল ফ্লাইট পরিচালনা করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস।

কভিড-১৯ মহামারিকালীন রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্তের কারণে বর্তমানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস শুধু ঢাকা থেকে গুয়াংজু রুটে বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

বর্তমানে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস অভ্যন্তরীণ রুট ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, সিলেট, যশোর, সৈয়দপুর, বরিশাল ও রাজশাহীতে ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

শেয়ার করুন!