সিলেটে বাস-প্রাইভেটকার সংঘর্ষ, নিহত ৫



হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :

সিলেটের সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার দশঘর গ্রামের রুহেলের স্ত্রী শাহিদা আক্তার (৩৫) ও ফিরোজ মিয়ার মেয়ে মালিহা বেগম (২৫)। ঢাকার গাজীপুর থেকে ঈদুল আজহার ছুটিতে পরিবারের সঙ্গে ঈদ করতে এ দুই পোশাক শ্রমিকসহ আরো কয়েকজন শুক্রবার ভোরে প্রাইভেটকারযোগে গ্রামের বাড়ি ফিরছিলেন। প্রতিমধ্যে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার পুটিজুরীর আব্দানারায়ন এলাকায় পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা মনোহরদী পরিবহনের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে প্রাইভেটকারটি দুমড়েমুচড়ে ঘটনাস্থলে চালক অজ্ঞাত(২৫) ও পোশাক শ্রমিক মালেহা নিহত এবং চারজন গুরুতর আহত হন। পরে বাহুবল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর অপর পোশাক শ্রমিক শাহিদা মারা যায়।

আহতরা হলেন- সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার ফিরোজ মিয়ার ছেলে আমিনুল ইসলাম (৩৮), তার স্ত্রী নাজমা আক্তার(৩৬), শুক্কুর আলীর ছেলে রুহুল আমীন(৩৭)।

খবর পেয়ে বাহুবল মডেল থানা পুলিশ ও শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠান। সেই সঙ্গে দুমড়েমুচড়ে যাওয়া প্রাইভেটকার সড়ক থেকে সরিয়ে আধাঘণ্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিক করে দেয় পুলিশ।

বাহুবল মডেল থানা ওসি(তদন্ত) আলমগীর কবির বলেন, প্রাইভেটকার অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে যাওয়ার কারণে হয়তো এই দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে। নিহত প্রাইভেটকার চালকের পরিচয় পাওয়া যায়নি। নিহত অপর দুইজন পোশাক শ্রমিক। তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে পাঠানো হয়েছে হাসপাতালে। তারা ঈদের ছুটিতে গাজীপুর থেকে বাড়ি ফিরছিলো।

শেয়ার করুন!