ভ্যাট অব্যাহতির সুবিধা পেল মোবাইল অপারেটরগুলো



অর্থনৈতিক রিপোর্টার :

দ্বৈত কর জটিলতা পরিহার করতে মোবাইল অপারেটরদের ভ্যাট অব্যাহতি সুবিধা দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। নতুন আদেশ অনুযায়ী, মোবাইল কোম্পানিগুলো ১৫ শতাংশ ভ্যাট মওকুফ সুবিধা পেল। এনবিআরের প্রথম সচিব (মূসক নীতি) কাজী ফরিদ উদ্দীনের সই করা বিশেষ আদেশে এমন তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে। গত ২৭ জানুয়ারি এ সংক্রান্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় এনবিআর। ২০১৯ সালের ১ জুলাই থেকে এ আদেশ কার্যকর হবে বলেও সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে।

মোবাইল অপারেটর কর্তৃক বিটিআরসিকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রজন্মের (২এ ও ৩এ) লাইসেন্স ব্যবহারের শর্ত অনুযায়ী প্রাপ্ত রেভিনিউ শেয়ারিংয়ের বিপরীতে মূল্য সংযোজন কর (মূসক/ভ্যাট) হতে অব্যাহতি প্রদান শীর্ষক ওই আদেশে আরও বলা হয়েছে, মোবাইল অপারেটররা গ্রাহকদের নিকট হতে যে সেবামূল্য আদায় করে তার উপর ১৫ শতাংশ হারে মূসক পরিশোধের পর প্রাপ্ত অর্থ হতে রেভিনিউ শেয়ারিং হিসাবে ৫.৫ শতাংশ অর্থ দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রজন্মের (২এ ও ৩এ) লাইসেন্স ব্যবহারের শর্ত অনুযায়ী বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনকে (বিটিআরসি) প্রদান করে থাকে। তারপরও রেভিনিউ শেয়ারিং হিসাবে পরিশোধযোগ্য রাজস্বের ওপর উৎসে মূল্য সংযোজন কর কর্তন ও আদায় বিধিমালা, ২০২০ এর বিধি ৩ এর ৫ উপবিধি অনুযায়ী বিটিআরসি কর্তৃক ১৫ শতাংশ হারে উৎসে মূসক/ভ্যাট আদায় বা কর্তনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এনবিআরের সার্বিক পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী এটা দ্বৈত মূল্য সংযোজন করে আরোপিত হয় মর্মে দেখা গেছে।

এ কারণে দ্বৈত মূল্য সংযোজন কর পরিহারের লক্ষ্যে এনবিআর মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২ (২০১২ সনের ৪৭নং আইন) এর ১২৬ ধারার প্রদত্ত ক্ষমতাবলে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনকে দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রজন্মের (২এ ও ৩এ) লাইসেন্স ব্যবহারের শর্ত অনুযায়ী রেভিনিউ শেয়ারিং হিসাবে মোবাইল অপারেটর কর্তৃক উৎস ভ্যাট প্রদান করে আসছিল সেই ভ্যাট অব্যাহতি বা মওকুফ করা হলো।

এর আগে মোবাইল অপারেটররা দ্বৈত ভ্যাট আদায়ের বিষয়ে বিভিন্ন সময় এনবিআরের কাছে দাবি জানিয়ে আসছিল।

শেয়ার করুন!