ঠাকুরগাঁও ও রাণীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে নৌকা প্রার্থীর জয়



ছবি-সিএনবাংলাদেশ।
মো: জাহিদ হাসান মিলু, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :

ঠাকুরগাঁও ও রাণীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে বেসরকারিভাবে নৌকা মার্কা জয় লাভ করেছে। রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪ পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ১২ টি ওয়ার্ডে ২১ টি ভোট কেন্দ্রে ইভিএমের মাধ্যমে চলে একটানা ভোট গ্রহণ। পরে ভোট গণনা শেষে রাতে ঠাকুরগাঁও পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মনোনিত প্রার্থী নৌকা মার্কা প্রতীকে আঞ্জমান আরা বেগম বন্যা প্রথম নারী মেয়র পদে ২৬ হাজার ৫শ ২ ভোট পেয়ে জয় লাভ করেন বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জিলহাজ উদ্দিন।

অপরদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী বিএনপির মনোনিত প্রার্থী ধানের শীষ মার্কার শরিফুল ইসলাম শরিফ ৫ হাজার ৩শ ৩৩ ভোট পেয়েছেন। এছাড়াও বাংলাদেশ ইসলামী শাসন আন্দোলনের মনোনিত প্রার্থী হাত পাখা মার্কার আনোয়ার হোসেন ১ হাজার ৬৩ ভোট পেয়ে পরাজীত হয়েছেন।

অন্যদিকে ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল পৌরসভার ভোট গ্রহণ হয় ব্যালট পেপারের মাধ্যমে। এ পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামীলীগের মনোনিত প্রার্থী নৌকা প্রতীকে মোস্তাফিজুর রহমান ২ হাজার ৮শ ৬ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে জয় লাভ করেন বলে জানিয়েছেন রাণীশংকৈল পৌরসভার রির্টানিং অফিসার সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির । এবং তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইস্ত্রি মার্কার মোকারম হোসেন ২ হাজার ৩শ ৭১ ভোট পেয়ে পরাজিত হন।
ভোট গ্রহণের সময় বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জমান সেলিম ও পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর হোসেন। এছাড়াও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ করার জন্য বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটসহ আনছার সদস্যদের মোতায়ন করা হয়েছিল।

ঠাকুরগাঁও পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ৬০ হাজার ৭শ ২৪ জন ও রাণীশংকৈল পৌরসভার মোট ভোটার সংখ্যা ১৪ হাজার ৫শ ২০ জন। এদিকে ঠাকুরগাঁও পৌরসভা নির্বাচন চলাকালে সকাল সাড়ে ১১ টায় জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ভোট জালিয়াতি ও কেন্দ্র দখলের অভিযোগ এনে ফলাফল বর্জনের ঘোষণা দেন ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমীন।

শেয়ার করুন!