২১ ঘণ্টা পর পুলিশ সদস্যকে ফেরত দিল বিএসএফ



ফাইল ছবি।
পঞ্চগড় প্রতিনিধি :

পঞ্চগড়ের মমিনপাড়া সীমান্ত এলাকা থেকে ধরে নিয়ে যাওয়ার ২১ ঘণ্টা পর পুলিশ সদস্য ওমর ফারুককে ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় উপজেলা সদরের ৭৫৩ নম্বর মেইন পিলারের কাছে ব্যাটালিয়ন পর্যায়ে পতাকা বৈঠক শেষে তাকে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করে বিএসএফ।

পতাকা বৈঠকে বিজিবির পক্ষে নীলফামারী ৫৬ বিজিবি ব্যটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মামুন এবং বিএসএফের পক্ষে ২১ বিএসএফ ব্যটালিয়নের কমান্ডেন্ট জি. এস. টমার নেতৃত্ব দেন। পরে বিজিবি ওই পুলিশ সদস্যকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

এ সময় পঞ্চগড়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার রায়, বিজিবির ঘাগড়া সীমান্ত ফাঁড়ির কোম্পানি কমান্ডার সুবেদার নুরুল আমিন, সদর থানা পুলিশের ওসি (তদন্ত) জামাল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রোববার রাত ৮টার দিকে মমিনপাড়া সীমান্তের ৭৫৩ নম্বর মেইন পিলার এলাকা থেকে ভারতীয় নাগরিকরা ওই পুলিশ সদস্যকে ধরে মারধর করে এবং ভারতের চানাকিয়া বিএসএফ ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যদের হাতে তুলে দেয়। বিএসএফের হাতে আটক ওমর ফারুক নামে ওই পুলিশ সদস্য পঞ্চগড় জেলা জজ আদালতে নিরাপত্তার দ্বায়িত্বে ছিলেন।

পঞ্চগড় সদর থানার ওসি (তদন্ত) জামাল হোসেন বলেন, বিএসএফের হাতে আটক হওয়া ওমর ফারুক জেলা পুলিশের একজন সদস্য। সন্ধ্যার পর আমরা তাকে হাতে পেয়েছি। তিনি আহত থাকায় এখন তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তিনি কী কারণে ওই সীমান্তে গিয়েছিলেন তা তদন্ত করা হচ্ছে। তার চিকিৎসা শেষে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন!