রাজপথে না এলে কারও মুক্তি হবে না : মান্না



ফাইল ছবি :
সিএনবাংলাদেশ অনলাইন :

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, গণতন্ত্রের জন্য রাজপথে লড়াই করতে হবে। ভয় পাবেন না। রাজপথে না এলে কারও মুক্তি হবে না। বুধবার রাজধানীর তোপখানা শিশুকল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে নাগরিক ঐক্যের কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু বকর সিদ্দিকীর চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকীতে আয়োজিত স্মরণসভায় তিনি এসব বলেন।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, গত ১২ বছর দেশে সবকিছু উল্টো চলছে। জনগণ এখন স্বপ্ন দেখতেও ভুলে গেছে। তবে আমি সামনে আলোর বাতি দেখছি। সামনে ভালো দিন দেখব বলে আশা করছি। এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। রাজপথে নামতে হবে।

দেশের অর্থনীতির দুরবস্থা চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আজ যে শিশুটি জন্ম নিচ্ছে তাকেও মাথাপিছু ৭০ হাজার টাকার ওপরে ঋণের বোঝা নিতে হচ্ছে। দেশের উন্নয়ন বলতে বড় বড় ভবন, পদ্মাসেতু নয়। গত এক বছরে আরও ২১ ভাগ লোক দরিদ্র থেকে দরিদ্র হয়েছে। অর্থনৈতিক উন্নয়ন মানে মানবসম্পদের দুর্দশা হতে পারে না। এখন আমাদের দেশে মানবসম্পদের কোনো উন্নয়ন নেই। উন্নয়ন হয়েছে সরকারের মন্ত্রী, এমপিদের, তাদের দলের নেতাকর্মীদের। সাধারণ মানুষের ভাগ্যের কোনো উন্নয়ন হয়নি।

মান্না বলেন, আজ প্রধানমন্ত্রী বলছেন- দেশের মানুষ স্বপ্ন দেখছে! আমি বলছি- না। সেই স্বপ্ন শুধু আপনার চোখে, আপনার পুত্র-কন্যার চোখে। কয়েকটি ফ্লাইওভার হলেই উন্নয়ন হয় না। দেশের মানুষ আজ আর আপনাদের উন্নয়ন চায় না।

তিনি বলেন, সরকার জিয়াউর রহমানের মুক্তিযুদ্ধের জন্য প্রাপ্ত খেতাব বাতিল করছে, তাতে কি মানুষের মন থেকে তার নাম মুছে যাবে? তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছেন, একটি সেক্টর কমান্ডার ছিলেন, জেড ফোর্সের কমান্ডার ছিলেন। তাকে ইতিহাস থেকে সরিয়ে দেওয়া যাবে না।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন নাগরিক ঐক্যের উপদেষ্টা এস এম আকরাম, সমন্বয়ক শহীদুল্লাহ কায়সার, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মমিনুল ইসলাম, মোফাখখারুল ইসলাম নবাব, শাহনাজ রানু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্য সচিব আতিকুল ইসলাম প্রমুখ।

শেয়ার করুন!