সিলেটের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা অস্ত্রধারী ফয়সল এখন বেওয়ারিশ…!



নিজস্ব প্রতিবেদক :

সিলেটের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা অস্ত্রধারী ফয়সল আহমদ ফাহাদকে নিয়ে জটিলতা তুঙ্গে। সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের কোন নেতাকর্মী বা শাসকদলীয় নেতারা কোনভাবে তার দায়ভার নিতে রাজি নয়। তার রাজনৈতীক দলীয় পরিচয় মিললেও এখন তিনি বেওয়ারিশ। বর্তমানে তাকে নিয়ে সিলেটের জনমনে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরের দিকে সিসিক ও প্রশাসন মিলে নগরীর চৌহাট্টা থেকে অবৈধ পরিবহন স্ট্যান্ড সরিয়ে নিতে অনুরোধ করে তখন পরিবহন শ্রমিকরা তা সরাতে অপারগতা প্রকাশ করে। একপর্যায় পরিবহন শ্রমিকরা তাদের সাথে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এসময় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফয়সল গুলি করার প্রস্তুতি নিলে পুলিশ তাকে হাতেনাতে আগ্নেয়াস্ত্রসহ আটক করে।

আটককৃত ব্যক্তি হলেন, সিলেট মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ফয়সল আহমদ ফাহাদ (৩৮)। সে আটকেরপর তার নিজদলীয় বা শ্রমিক পরিবহনের কোন নেতাকর্মী তাকে কেউ ‘চেনেন না’ বলে জানিয়েছেন। এনিয়ে সিলেটের সমগ্র মহলে সমালোচনা-আলোচনা এখন তুঙ্গে। তার সংগঠনের নেতা ও ঘনিষ্টজন বলে পরিচিত সিসিক কাউন্সিলর আফতাব হোসেন খান প্রথমেই বললেন তাকে তিনি চেনেন না। একই ভাবে সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নবনির্বাচিত সভাপতি ময়নুল ইসলামও জানালেন সেই বন্দুকধারী পরিবহনের কেউ নয়। তাহলে ফয়সল কি এখন বেওয়ারিশ….?

অপরদিকে গণমাধ্যমের সামনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কোন নেতাকর্মী এবিষয়ে মুখ খুলতে রাজি হচ্ছেন না। শ্রমিকের দাবি আদায়ের স্বার্থে ফয়সল নিজের জীবন বাজি রেখেছিল কেন এর হদিসও মিলছে না। এনিয়ে সচেতন মহলেও দেখা দিয়েছে জল্পনা-কল্পনা।

এদিকে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) জ্যোতির্ময় সরকার জানিয়েছেন ফাহাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার করুন!