শ্রীমঙ্গলে জাপানিজ গ্রীণ টি নিয়ে চা ব্যবসায়ীদের মতবিনিময়



শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি :

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ফিনলে টি কোম্পানির নতুন উৎপাদিত শীনরাই নামক জাপানিজ গ্রীণ টি ও বিভিন্ন ক্যাটাগরীর প্যাকেটিং চায়ের বিভিন্ন গুণাবলী নিয়ে চা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফ্রেব্রুয়ারি) দুপুরে শ্রীমঙ্গল শহরের গ্রান্ড তাজ রেস্টুরেন্ট এন্ড পার্টি সেন্টারে ফিনলে টি কোম্পানির পরিবেশক -মেসার্স ফাহিম এন্টারপ্রাইজের আয়োজনে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি চেরাগ আলী’র সভাপতিত্বে ও কোম্পানির পরিবেশক -মেসার্স ফাহিম এন্টারপ্রাইজের স্বাত্তাধিকারী সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় ভাচ্যুয়াল মিটিংয়ে অংশ গ্রহন করেন ফিনলের সিইও নাভিল ইকবাল ও জেনারেল ম্যানেজার(মার্কেটিং) মোর্শেদ চৌধুরী।
এসময় উপস্থিত ছিলেন ফিনলে টি কোম্পানির মার্কেটিং ম্যানেজার সাব্বির সাহাবুদ্দিন। ফিনলে টি কোম্পানির কুমিল্লা রিজিওয়নের রিজিওনাল ম্যানেজার রাশেদ হাসান চৌধুরী।

এতে মৌলভীবাজার জেলাসহ শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ উপজেলা থেকে প্রায় ৪০জন চা ব্যবসায়ীরা অংশ নেন। উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন টেলিভিশন ও প্রিন্ট মিডিয়ার সংবাদকর্মীবৃন্দ।
সভায় চা ব্যবসায়ী সমিতির সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী হিমেলসহ চা ব্যবসায়ি ও সংবাদকর্মীরা বক্তব্য রাখেন।

অতিথিসহ বক্তাতারা বলেন, ১২৫ বছর থেকে চা শিল্পের সাথে জড়িত রয়েছে। দেশের বাজারে প্রথম জাপানি প্রযুক্তির ফিনলে নিয়ে এলো শিনরাই জাপানিজ গ্রিন টি যা তাদের জাগছড়া চা বাগানের ফ্যাক্টরীতে উৎপাদন করা হচ্ছে। ফিনলে টি কোম্পানির ভাড়াউড়া ডিভিশনের জাগছড়া চা বাগানে প্রায় চার কোটি টাকা ব্যয়ে জাপানিজ প্রক্রিয়ায় দেশের বাজারে এই প্রথম শিনরাই গ্রিন টি বাজারজাত শুরু করেছে। এটি শরীরের সর্বোচ্চ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আর দুর্দান্ত ইউমিউনিটির প্রয়োজন মেটাতে ফিনলে নিয়ে এলো এই শিনরাই গ্রিন টি। ফিনলে টি কোম্পানির দশ রকমের বøাক টি এবং চার রকমের গ্রিন টি রয়েছে। বক্তারা বলেন, ফিনলে কোম্পানীর চা পাতাগুলো যেন শ্রীমঙ্গলের অকশন সেন্টারে নিলামে তুলার জন্য।

শেয়ার করুন!