শ্রীমঙ্গলের ব্যবসায়ী লক্ষন পালের হত্যাকারী তিন আসামী আটক



শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি :

মৌলভীবাজারের রাজনগরে পাওনা টাকা আনতে গিয়ে হত্যার শিকার হওয়া শ্রীমঙ্গলের ব্যবসায়ী লক্ষন পালের খুনীদের আটক করেছে রাজনগর থানা পুলিশ। মঙ্গলবার রাতভর অভিযান চালিয়ে খুনিদের আটক করতে সক্ষম হয় পুলিশ। ব্যবসয়ী লক্ষনকে খুন করার কথা স্বীকার করেছে আটককৃত তিন আসামী। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা ৫জন জড়িত বলে খুনের কথা স্বীকারোক্তি দিয়েছে বলে জানায় পুলিশ। মঙ্গলবার ১৬ মার্চ রাতে অভিযান চালিয়ে আসামীদের আটক করে পুলিশ। উলেখ্য শ্রীমঙ্গলের ব্যবসায়ী মনোরঞ্জন পালের পুত্র লক্ষন পাল (৪০) সে রাজনগরের ব্যবসায়ী উত্তরগাও গ্রামের রঞ্জিত দেবের পুত্র রবেন্দ্র দেব এর সঙ্গে ব্যবসা করতো। এক পর্যায়ে রিয়াদের নিকঠ ব্যবসার বাকি টাকা পাওনা ছিল। পাওনা টাকা নিয়ে রবেন্দ্র এর সাথে তার বিরোধও চলে আসছিল। গত ১২ মার্চ লক্ষন পালকে টাকা দেবে বলে রাজনগরে ডেকে নেয় রবেন্দ্র দেব। লক্ষন সেদিন তাঁর পাওনা টাকা আনতে শ্রীমঙ্গল থেকে যায় রাজনগরে। পূর্বথেকে রবেন্দ্র দেব, তার সহযোগী রিয়াদ ও জয়নাল আবেদিন কে নিয়ে অপেক্ষা করতে থাকে। এক পর্যায়ে লক্ষন তাদের সাথে দেখা করে তার পাওনা টাকা চায়। তখন রবেন্দ্র দেব তার আরো দুই সহযোগীকে নিয়ে লক্ষনের উপর হামলা চালায়। এসময় লক্ষনকে ধারালো ছুরি দিয়ে আঘাত করে। ছুরির আঘাতে যখন লক্ষন মৃত্যুর কুলে ঢলে পড়ে, তখন রবেন্দ্র দেব তার ওপর সঙ্গীদের নিয়ে লক্ষনকে সিএনজি অটোরিক্সয় তোলে নিয়ে নির্জন স্থানে ফেলে চলে যায়। পরে রাজনগর থানার পুলিশ খবর পেয়ে সেদিন রাত সাড়ে ১২টায় পাশীপাড়া সড়কের পাশ থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ ব্যাপারে পরদিন লক্ষনের ভাই বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামী উলেখ করে লক্ষন হত্যার একটি মামলা দায়ের করে রাজনগর থানায়। মামলায় উলেখ্য করেন লক্ষনের সাথে থাকা পঞ্চান্ন হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন হত্যাকারিরা নিয়ে যায়। পরে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল জিয়াউর রহমানের নির্দেশে এ খুনের রহস্য উদঘাটনে রাজনগর থানা পুলিশ মাঠে নামে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল মঙ্গলবার রাতে রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) দেবদুলাল ধর ও এসআই পরিতোষ পাল, এসআই সিদ্ধার্থ শেখর, এএসআই মৃতৃঞ্জয় সরকার, এএসআই জালাল উদ্দিন সহ পুলিশের একটি দল বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তিন আসামীকে আটক করতে সক্ষম হন। আটককৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী হত্যায় ব্যবহৃত একটি ছুরি ও একটি সিএনজি অটোরিক্সয় উদ্বার করা হয়। খুনের সাথে জড়িত অন্য দুই আসামী উত্তরগাও গ্রামের রঞ্জিত দেব এর পুত্র রবেন্দ্র দেব (৩৬) ও আলীপুর গ্রামের জামাল মিয়ার পুত্র জয়নাল আবেদিন (২৮) বুধবার ১৭ মার্চ সকালে আটককৃত তিন আসামীকে মৌলভীবাজার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। এঘটনার সাথে জড়িত অন্য আসামীদের আটক করতে পুলিশের অভিযান অব্যহত রয়েছে বলে জানান, রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল হোসেন।

শেয়ার করুন!