তেল ও দ্রব্যেমূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সিলেটে বামজোটের বিক্ষোভ মিছিল



সিলেট প্রতিনিধি/

জ্বালানি তেল, গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি, বাস ভাড়া বৃদ্ধি ও দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সিলেটে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাম গণতান্ত্রিক জোট সিলেট জেলা।

সোমবার বিকেল চারটায় নগরের সিটি পয়েন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়। এরপর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে গিয়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) সিলেট জেলার সভাপতি ও বাম গণতান্ত্রিক জোট সিলেট জেলার সমন্বয়ক সিরাজ আহমদের সভাপতিত্বে ও বাসদ সিলেট জেলার সদস্য প্রণব জ্যোতি পালের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন বাসদ (মার্কসবাদী) সিলেট জেলার আহ্বায়ক উজ্জ্বল রায়, বাসদ জেলা সমন্বয়ক আবু জাফর ও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি সিলেট জেলার নেতা মো. নাবিল এইচ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাসদ নেতা জুবায়ের চৌধুরী সুমন, ওয়ার্কার্স পার্টি (মার্কসবাদী) সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক ডা. হরিধন দাস, বাসদ (মার্কসবাদী) সিলেট জেলার নেতা মখলিছুর রহমান, যুব ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সদস্য মতিউর রহমান প্রমুখ।

বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘সরকার গত সাত বছরে জ্বালানি থেকে ৪৩ হাজার ৫২ হাজার কোটি টাকা লাভ করেছে। কিন্তু উল্টো ভর্তুকি না দিয়ে মূল্য আরও বাড়িয়েছে। জনগনের প্রতি বর্তমান সরকারের কোনো দায়বদ্ধতা না থাকায় তারা বার বার তেল-গ্যাসসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধি করছে।’

বক্তারা আরও বলেন, ‘জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির পর পাঁতানো খেলার মাধ্যমে বাস ভাড়া বাড়ানো হয়েছে। এদিকে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ায় পন্য পরিবহণ ও উৎপাদন খরচ বাড়বে। ফলে বাড়বে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিষের দাম। বর্তমানে এমনিতেই প্রতিটি পণ্যের দাম মানুষের ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে গেছে। মানুষ এখন একদিন বাঁচলে আরেকদিন কীভাবে বাঁচবে তা জানা নেই তাদের। এমন অবস্থায় ঘরপোড়ার মধ্যে আলুপোড়া দিয়ে সরকার জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি করেছে।’

অবিলম্বে জ্বালানি তেল, বাস ভাড়া ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম না কমানো হলে জনগনকে সঙ্গে নিয়ে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন বক্তারা।

শেয়ার করুন!