গাইবান্ধায় বাস-ইজিবাইক মুখোমুখি সংঘর্ষ: নিহত ৬



গাইবান্ধা প্রতিনিধি/

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে হানিফ পরিবহনের একটি নৈশকোচের সঙ্গে ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ পাঁচ যাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও তিন জন। পরে গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার ঘটনায় পলাতক বাসচালক সোলায়মানকে মোকামতলা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শুক্রবার (১৯ নবেম্বর) সকাল ৭টার দিকে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের গোবিন্দগঞ্জের বকচর এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন- অটোরিকশার চালক টুকু আমিন (৬৫), যাত্রী সোহাগ মিয়া (২২), আশরাফ মিয়া (৭০), রিপন মিয়া (৩২) ও সুজন মালি (৪০)। তাদের বাড়ি গোবিন্দগঞ্জের ঘোষপাড়া, শিবপুর, বর্ধনকুটি ও মধ্যপাড়া গ্রামে।আহতরা হলেন- সিদ্দিক মিয়া (৪০), মাজেদুল ইসলাম (৩০) ও খোকন চন্দ্রকে (২২)। তাদেরকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ঢাকা থেকে হানিফ পরিবহনের একটি কোচ রংপুরের দিকে যাচ্ছিল। সকালে গোবিন্দগঞ্জের বকচর এলাকায় পৌঁছালে ইজিবাইকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় ঘটনাস্থলে ৪ জন ও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আরও একজন মারা যায়। পরে গুরুত্বর আহত একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে । এ ঘটনায় পথচারী ও বাসের যাত্রীসহ আহত হয়েছেন আরও দুইজন।

গোবিন্দগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ইনচার্জ আরিফ আনোয়ার জানান, ঘটনাস্থল থেকে চার জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আর আহত তিনজনকে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। পরে হাসপাতালে একজনকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

দুর্ঘটনাকবলিত কোচসহ দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া ইজিবাইক উদ্ধার করে করে হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হৃযেছে।গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খায়রুল ইসলাম জানান, ওভারটেক করতে গিয়ে ইজিবাইকের সঙ্গে ওই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। লাশ স্বজনরা বাড়ি নিয়ে গেছেন। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে হানিফ পরিবহনের একটি নৈশকোচের সঙ্গে ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ পাঁচ যাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও তিন জন।পরে গোবিন্দগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হওয়ার ঘটনায় পলাতক বাসচালক সোলায়মানকে মোকামতলা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

শেয়ার করুন!