হিলি রেলস্টেশনের সচলকরণ কাজ শুরু



মোঃ সামিউল আলম, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি :

ছবি-সংগৃহীত। প্রায় ৩৬ মাস বন্ধ থাকার পর দিনাজপুরের হিলি রেলস্টেশনের সকল কার্যক্রম চালু করার লক্ষে স্টেশনের মেরামত কাজ শুরু করেছে রেল কর্তৃপক্ষ। অবেহেলিত এই রেলস্টেশনে ছিলো না কোন স্টেশন মাস্টার বা কোন কর্মচারী। কষ্টের সীমা ছিলো না হিলিবাসীর। যদিও সেখানে প্রতিদিন তিনটি ট্রেন দাঁড়ায়, তবে দুই নাম্বার লাইনে। দরজার হাতল ধরে ঝুলে ওঠা-নামা করতে হয় যাত্রীদের।
স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা রাজশাহী গামী বরেন্দ্র এক্সপ্রেস ট্রেনের কয়েকজন যাত্রী জানান, এই স্টেশনে সকল ট্রেনের যাত্রা বিরতি না দেওয়ায় ভীষন সমস্যায় পরতে হয় তাদেরকে। ঢাকাগামী যাত্রীদেরকে পার্শ্ববর্তী বিরামপুর কিংবা পাঁচবিবি বা জয়পুরহাট স্টেশনে গিয়ে যাত্রা করতে হয়।

জানা গেছে, আগামী ১৭ ফেব্রুয়ারী থেকে ট্রেনগুলো এক নাম্বার প্লাটফর্মে দাঁড়াবে। আর সেগুলোর টিকিটও পাওয়া যাবে এই স্টেশনে। এতে করে দূরের যাত্রাপথে সাধারণ যাত্রীদের যাতাযাত কষ্ট অনেকটাই লাঘব হবে হিলিবাসীর।

উল্লেখ্য যে, ২০১৭ সালে জনবল সংকট দেখিয়ে অত্র স্টেশন থেকে মাষ্টারসহ সকল স্টাফ প্রত্যাহার করে নিয়েছিল রেলকর্তৃপক্ষ।

হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন-উর-রশিদ হারুন ও পৌর মেয়র জামিল হোসেন চলন্ত উক্ত স্টেশন পুনঃচালু করণের কাজে সার্বক্ষণিক তদারকি ও সহযোগীতা করে যাচ্ছেন। তারা জানান, আগামী সোমবারের মধ্যেই হিলি রেলস্টেশনের সকল কার্যক্রম পুনরায় চালু হবে।

দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ শিবলী সাদিক সিএনবাংলাদেশ-কে জানান, মাননীয় রেলমন্ত্রীর আন্তরিক প্রচেষ্টায় হিলি রেলস্টেশনের কার্যক্রম পুনরায় শুরু হতে যাচ্ছে। সকল কার্যক্রম শুরু হলে পূর্বের ন্যায় স্টেশনটির প্রাণচাঞ্চল্যতা আবারো ফিরে আসবে। সেই সাথে হিলি স্থলবন্দরের বাণিজ্য খাত আরো বেগবান হবে এবং উন্নয়নের প্রসারতা বেড়ে যাবে।

হিলি রেলস্টেশনের নবাগত দায়িত্বপ্রাপ্ত মাস্টার রুহুল আমিন জানান, আগামী সোমবার থেকে স্টেশনের কার্যক্রম শুরু হতে পারে। সেজন্য দ্রæত গতিতে স্টেশনের সকল সরঞ্জামের মেরামতের কাজ করা হচ্ছে। যাত্রীদেরকে যেন আর কোন বিড়ম্বনা বা ভোগান্তিতে পড়তে না হয় সেক্ষেত্রে সব ধরনের যাত্রীসেবা সঠিকভাবে দিয়ে যাবেন বলে প্রত্যয় ব্যক্ত করেন তিনি।

শেয়ার করুন!