খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়টি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রলয়ের না



সিএনবাংলাদেশ অনলাইন :

খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেবার বিষয়টি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রলয়ের না বলে জানিয়ে দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বলেছেন, তাকে (খালেদা জিয়া) মুক্তি দিতে হলে আইনের আশ্রয় এবং আদালতে যেতে হবে।

সোমবার (৯মার্চ) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে হজ্জ বুথ সেবা-২০২০ শুভ উদ্বোধন অনুষ্টান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন। পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশনের ডিজি সাকিল আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দিন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা বিভাগের সচিব শহিদুজ্জামান, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব নুরুল ইসলাম প্রমুখ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তার পরিবার থেকে একটা আবেদন করেছে। সেই আবেদন অনুযায়ী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় কি তাকে মুক্তি দেবার ক্ষমতা রাখে না। তাকে মুক্তি দিতে হলে আইনের আশ্রয় এবং আদালতে যেতে হবে। আমরা আইনমন্ত্রণালয়ে সেই চিঠি পাঠিয়ে দিয়েছি মতামতের জন্য। তারাই পরবর্তী ব্যবস্থা নিবেন। আইনমন্ত্রণালয় বলেছে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া এখতিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, দেখুন আইনের বাইরে তো আইনমন্ত্রী মহোদয় কিছু বলতে পারে না। আবার আমরাও যেতে পারি না। আমরা যেখানে যা প্রয়োজন তাই করছি। তার আবেদনটা আমরা আইনী মতামতের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি। আবারও বলছি, যাই কিছু করতে হয় এটা বিচারবিভাগীয় ব্যবস্থার মাধ্যমে হবে; এর বাইরে কিছু হবে না।

মুজিববর্ষের সার্বিক নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অনুষ্ঠান সম্পর্কে গতকাল (রবিবার) গণভবন থেকে প্রেসরিলিজ দিয়েছে। ওখানে আমাদের যা যা বলা হয়েছে তাই আমরা ফলো করব। জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি কালকে এবং ভবিষ্যতে কী করব সব প্রোগ্রাম আপনাদের তারাই জানাবে। এখানে আমাদের কিছু বলার নেই। আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী এবং এই দেশের জনগণ উম্মুখ হয়ে রয়েছিল তারা এই মুজিববর্ষটা হৃদয় দিয়ে পালন করবে। যে ভাইরাসের কথা বলা হচ্ছে সেটা আমাদের জনগনকে আটকে রাখতে পারবে না। জনগন যে যার জায়গা থেকে মুজিববর্ষ পালন করবে। যে কোন কিছুতে আমাদের নিরাপত্তাবাহিনী সবসময় সজাগ থাকে। এই আনন্দের দিনে কেউ কোন ধরণের বিব্রতকর পরিস্থিতি করার চেষ্টা আমার মনে হয় করবেনা বা সাহস করবে না।

শেয়ার করুন!