বিশ্বকাপ জেতা নিয়ে শাস্ত্রীর টুইটকে বিদ্রুপ যুবরাজের



স্পোর্টস ডেস্ক :

২০১১ সালের দোসরা এপ্রিল আরব সাগরের পারে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ভারত। সেই উপলক্ষে বৃহস্পতিবার টুইট করেছিলেন জাতীয় দলের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী। আর তা নিয়েই শাস্ত্রীকে খোঁচা দিলেন যুবরাজ সিংহ।

ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ছয় মেরে ম্যাচ শেষ করেছিলেন ধোনি। সেই মুহূর্তে ধারাভাষ্যকার ছিলেন শাস্ত্রী। সেই জয়ের নবম বার্ষিকী ছিল বৃহস্পতিবার। সেই কীর্তিকে অভিনন্দন জানিয়ে টুইট করেছিলেন শাস্ত্রী। কিন্তু তাঁর টুইটে যুবরাজ ও মহেন্দ্র সিংহ ধোনির কোনও উল্লেখ ছিল না। এটাই মানতে পারেননি যুবি। সেই কারণেই শাস্ত্রীকে চিমটি কাটলেন তিনি।

শাস্ত্রী টুইট করেছিলেন, ‘অনেক অভিনন্দন। এটা তোমরা সারা জীবন উপভোগ করবে। ঠিক যেমন ভাবে আমরা ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়কে মনে রাখি।’ এই টুইটেই তিনি সচিন তেন্ডুলকার ও বিরাট কোহলির টুইটার হ্যান্ডেলের উল্লেখ করেন। যা দেখে যুবি পাল্টা টুইট করেন, ‘ধন্যবাদ সিনিয়র! তবে আমাকে আর মাহিকেও ট্যাগ করতে পারতেন। আমরাও বিশ্বকাপ জয়ের অংশ ছিলাম।’

যুবরাজ ছিলেন ২০১১ বিশ্বকাপের সেরা ক্রিকেটার। নয় ম্যাচে ৯০.৫০ গড়ে ৩৬২ রান করেছিলেন তিনি। তা ছাড়া তিনি ১৫ উইকেটও নিয়েছিলেন। আর ফাইনালের সেরা ক্রিকেটার ছিলেন ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। ৭৯ বলে তিনি ৯১ রানে অপরাজিত ছিলেন। উইনিং স্ট্রোকও এসেছিল তাঁর ব্যাটে। সেই সময় ক্রিজের অন্যপ্রান্তে ছিলেন যুবরাজ। ২৪ বলে ২১ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। অবিচ্ছিন্ন পঞ্চম উইকেটে ধোনি-যুবি যোগ করেছিলেন ৫৪ রান।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

শেয়ার করুন!