করোনা : সরকারি নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখাচ্ছেন ওসি গোলাম দস্তগির!



ফেসবুক থেকে সংগৃহীত ছবি।
নিজস্ব প্রতিবেদক :

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঊর্ধ্বগতি রোধে সরকার যখন লকডাউনে কঠোর ঠিক তখনি ওসি গোলাম দস্তগির স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করে অফিসে বসে ফুলেল সংবর্ধনা গ্রহণ করলেন। এরকম কিছু ছবি ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। গত ২২ এপ্রিল এই ছবিগুলো ভাইরাল হওয়ার পর থেকে স্থানীয় এলাকায় ওসি’র জনসচেতনতামুলক কার্যক্রম নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। একটি অনলাইন টিভি চ্যানেল-এ জৈন্তাপুর পরিবহন শ্রমিকদের নিয়ে ফেসবুকে ছবিগুলো ভাইরাল করতে দেখা গেছে।

আমাদের পার্শ্ববর্তি দেশ ভারত যখন লাশের পর লাশ গুণছে ঠিক সেই মূহুর্তে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আনন্দে আত্মহারা হয়ে নিজে মাস্ক ব্যবহার না করে অন্যদের অতি উৎসাহি করছেন। এমনটি বিস্তর অভিযোগ উটেছে তার বিরুদ্ধে। ইতোমধ্যে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার করোনা প্রতিরোধে বিভিন্ন ধরণের উদ্যেগ গ্রহণ করেছে। সচেতনতামুলক নিয়মিত ভুলেটিনসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে ভিডিওকলেও দিকনির্দেশনা প্রদান করছেন। রহস্যজনক হলেও সত্য ওসি গোলাম দস্তগির সেই সরকারি নির্দেশনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে আইনের উর্ধ্বে থেকে নিজের দায়িত্ব পালনে মরিয়া। এতে নিজের মৃত্যুর পাশাপাশি অন্যদেরও টেলে দিচ্ছেন করোনাভাইরাসের মৃত্যু মুখে। জৈন্তাপুর সীমান্ত এলাকা হওয়া সত্তেও তার কোন টনক নড়ছে না।

সীমান্ত এলাকা জৈন্তাপুর থানা পুলিশের নাকের ডগা দিয়ে আলুবাগান, লালাখাল, রামপ্রশাদ (দরবস্ত) রাস্তা দিয়ে প্রতিরাতে গরু, মহিষ, বিভিন্ন ধরনের মাদক, কসমেটিকস, পাতার বিড়ি,বোমা সরাঞ্জামাধি-অস্ত্র, বিষাক্ত সাপের বিষ,নেশা জাতীয় ট্যাবলেট, শাড়ি, নিম্নমানের পণ্যসামগ্রীসহ হরেক রকম নিষিদ্ধকৃত ভারতীয় পণ্য প্রবেশ করছে দেশে। কতিপয় অসাধু বর্ডারগার্ড (বিজিবি) সদস্য ও চোরাকারবারীদের রোসানলে পড়ে থানা পুলিশও করোনাকালীন সময়েও চালিয়ে দিচ্ছে লাখ লাখ টাকা চাঁদা আদায়। যেখানে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী-এমপিসহ প্রশাসনের ব্যাক্তিরা করোনাসংক্রমণ রোধে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন সেখানে ওসি দস্তগির কুশল বিনিময়ে তারকা হয়ে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন। যদিও বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষসহ অনেকের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে মরণব্যাধি এই করোনাভাইরাস। এনিয়ে সচেতন মহলেও চলছে জল্পনা। তাদের মতে সাধারন জনগণ মাস্ক ব্যবহার বা স্বাস্থ্যবিধি না মানলে গুণতে হয় জেল জরিমানা আর ওসি’র ক্ষেত্রে দেয়া হয় ফুলের তোরা সংবর্ধনা?

এ বিষয়ে জানতে জৈন্তাপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম দস্তগির’র সাথে মুটোয়ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমি আর কি বলবো বলেন?

শেয়ার করুন!