এবার র‍্যাবের খাঁচায় বন্দি হলেন ‘ইয়াবা’ সাংবাদিক



সিএনবাংলাদেশ :

নাম-দস্তখত জানেন না। তিনি ঢাকা থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক অভিযোগ এর সিলেটের জকিগঞ্জ প্রতিনিধি তিনি।

সাংবাদিতার পরিচয়ধারী এই ব্যক্তি ইয়াবার চালানসহ আটক হয়েছেন।

সুনামগঞ্জে র‍্যাব ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর যৌথ অভিযান চালিয়ে দুই পেশাদার মাদক কারবারিকে আটক করেছে।
আটককৃতরা হল-সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার মুন্সিবাজার এলাকার উত্তর আইয়র গ্রামের মতছিন আলীর ছেলে আব্দুল আজিজ ওরফে কুটুল (৩২) ও সিলেটের শাহপরাণ এলাকার দোলইপাড়া গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে বাছেদ আহম্মদ (৪০)। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টায় সুনামগঞ্জের ধারাগাও খেয়াঘাটস্থ এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।
জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-৯, সিপিসি-৩,(সুনামগঞ্জ ক্যাম্প) এর একটি আভিযানিক দল ও মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর সুনামগঞ্জে গতকাল বৃহস্পতিবার যৌথ অভিযান করে। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে সুনামগঞ্জ জেলার সদর থানাধীন ধারাগাও খেয়াঘাটস্থ জামাল উদ্দিনের খাবার হোটেলের সামনে অভিযান পরিচালনা করে ৪২০ পিস ইয়াবা জব্দসহ পেশাদার মাদক কারবারী আব্দুল আজিজ কুটুল ও বাছেদ আহম্মদকে আটক করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আটককৃত আব্দুল আজিজ ওরফে কুটুলের গ্রামের বাড়ী জকিগঞ্জের একেবারে সীমান্তবর্তী উত্তর আইয়র গ্রামে।সে বিভিন্ন সময় নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে থাকে।ঢাকা থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক অভিযোগ নামক একটি পত্রিকার সে (কুটুল) জকিগঞ্জ উপজেলার বিশেষ প্রতিনিধির পরিচয় পত্রও সে ব্যবহার করে। গত বছরের দিকে এ নিয়োগ পাওয়ার পর সে তার ফেসবুক একাউন্টেও পরিচয়পত্র শেয়ার করে। অথচ সে নিজে তার নাম-দস্তগতও ভালো করে লিখতে পারেনি বলে ওই এলাকার কয়েকটি সূত্রে জানা গেছে। মাদকসহ গতকাল সে আটক হওয়ার পর এলাকাবাসী বলছেন, কথিত সাংবাদিক পরিচয়ের আড়ালে সে মাদক কারবার চালিয়ে যেত।

শেয়ার করুন!