২০ বছর পর সামনে এলো প্রথম এক্সবক্সের ‘ইস্টার এগ’



ফাইল ছবি।
সিএনবাংলাদেশ ডেস্ক :

প্রথম এক্সবক্স বাজারে আসার ২০ বছর পর সামনে এলো এতোদিন ধরে ডিভাইসটিতে লুকিয়ে রাখা ‘ইস্টার এগ’। সম্প্রতি এক ডেভেলপার এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানিয়েছেন। প্রখম এক্সবক্স তৈরি দলের সদস্য ছিলেন তিনি।

ওই ডেভেলপার জানিয়েছেন, কেউ ইস্টার এগটি খুঁজে না পাওয়ায় তিনি মোটেও অবাক হননি। “আমি আসলেও কেউ এটি খুঁজে পাবে এমনটা আশা করিনি, যদি না সোর্স কোড বেহাত হয়ে যায় বা কেউ ড্যাশবোর্ডে রিভার্স-ইঞ্জিনিয়ারিং করতে যায়।”

ইস্টার এগটি পেতে হলে, ব্যবহারকারীকে এক্সবক্স হার্ডওয়্যারে প্রথমে সিডি ঢুকাতে হবে, তারপর যখন ডিভাইসটি ব্যবহারকারীকে অ্যালবামের নাম লিখতে বলবে, তখন ২৬ বার ইংরেজি অক্ষর ওয়াই ব্যবহার করে টিমি নামটি লিখতে হবে। আসলে অক্ষর গোণার দরকার পড়বে না, টিমি লেখার সময় ফাঁকা অংশটি ওয়াই দিয়ে পূরণ করে দিলেই হবে এবং শেষে গিয়ে একটি বিস্ময়সূচক চিহ্ন দিতে হবে।

এরপর মিউজিক ফাইল এক্সবক্সের নিজ ড্রাইভে কপি করা শেষ হয়ে গেলে সেটিংস মেনুতে গিয়ে ‘সিস্টেম ইনফো’ অপশনে যেতে হবে ব্যবহারকারীদের। এখন কনসোলে ভেসে উঠবে নতুন ক্রেডিট তালিকা, এবারের তালিকায় দেখা যাবে ‘এক্সবক্স ড্যাশবোর্ড টিম’ সদস্যদের নাম।

“২০ বছর পার হয়ে যাওয়ায় এটি জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এবং আমার মনে হয়েছে যদি মানুষ এটি যে রয়েছে সে ব্যাপারে জানে তাহলে আসলে ভালোই হবে। আমার আরও মনে হয়েছে এখন যদি না জানাই, তাহলে হয়তো আর কখনও এটি হবে না। এতোটা সময় পার হয়েছে যে আমি নিজেও কোনটি ট্রিগার করে তা ভুলে গিয়েছিলাম। আমার পুরোনো এক্সবক্স সংযুক্ত করে এবং অনেকবার চেষ্টা করে তারপর নিশ্চিত হতে পেরেছি।” – বলেছেন ওই ডেভেলপার।

অন্যদিকে, মূল এক্সবক্সের নকশাবিদ সেমাস ব্ল্যাকলে জানিয়েছেন, টিমি ইস্টার এগ সম্পর্কে জানা ছিল না তার। সম্প্রতি ওয়েবসাইটের লেখা থেকে এটি নজরে এসেছে। তিনি আরও জানান, এক্সবক্সের ইস্টার এগ ফুরিয়ে যায়নি, ২০ বছর পুরোনো ওই কনসোলে অন্তত একটি ইস্টার এগ এখনও রয়ে গেছে যা এক্সবক্স ভক্তরা খুঁজে পাননি।

শেয়ার করুন!