হবিগঞ্জে সিভিল সার্জনের গাড়িচাপায় শিশু নিহত



ছবি-সিএনবাংলাদেশ।
জুয়েল চৌধুরী, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :

হবিগঞ্জের সিভিল সার্জনের গাড়িচাপায় লাখাইয়ে এক শিশু নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয়রা বিক্ষোভ করেছেন। গত ৮ জুন মঙ্গলবার লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স উদ্বোধন শেষে হবিগঞ্জ ফেরার পথে ডেপুটি সিভিল সার্জন মুখলেসুর রহমান উজ্জল কে বহন করা গাড়ি করাব অংশে পৌঁছলে শাহ ইউনুস মিয়া (৮) নামের এক শিশুকে চাপা দেয়। সে করাব গ্রামের শাহ মহিউদ্দিনের পুত্র। বেলা আড়াইটার দিকে ঘটনা দুর্ঘটনায় শিশুটি গুরুতর আহত হয়। এদিকে দুর্ঘটনার পর পর ডেপুটি সিভিল সার্জনের গাড়িটি দ্রæতগতিতে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে সদর উপজেলার ধল তেমুনিয়া এলাকা থেকে আটক করা হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশু ইউনুস মিয়াকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। গতকাল ৯ জুন সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় ইউনুস। সে স্থানীয় প্রাইমারী স্কুলের ২য় শ্রেণির ছাত্র। এদিকে ওই শিশুর মৃত্যুর খবর শুনে বিচারের দাবিতে করাব এলাকায় বিক্ষুব্দ জনতা সড়ক অবরোধ করেন। এতে ওই সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির আশ্বাসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

এ বিষয়ে সিভিল সার্জন মোস্তাফিজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি ছুটিতে আছি। গাড়িতে ডেপুটি সিভিল সার্জন ছিলেন। তিনি ভালো বলতে পারবেন।

এ বিষয়ে জানতে ডেপুটি সিভিল সার্জন মোখলেছুর রহমান উজ্জল বলেন, গাড়িটি সিভিল সার্জনের। তবে আমি গাড়িতে ছিলাম। উদ্বোধন শেষে আসার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তিনি শিশুটির চিকিৎসার জন্য যথেষ্ট চেষ্টা করেন বলেন জানান। লাখাই থানার ওসি সাইদুর রহমান জানান, শিশুটি মারা গেছে এবং এ বিষয়ে এখনও কোনো অভিযোগ পাইনি।

শেয়ার করুন!