সখীপুরে অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর আদায় শুরু



ছবি-সিএনবাংলাদেশ।
আমিনুল ইসলাম,সখীপুর (টাঙ্গাইল) :

টাঙ্গাইলের সখীপুরে ছয়টি ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ের কার্যক্রম অনলাইনে শুরু হয়েছে। এবং অনলাইনে শতভাগ নামজারি পক্রিয়া চলমান রয়েছে। ভূমি মালিকগণ অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর ও নামজারি খারিজের আবেদন করতে পারায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) হা-মীম তাবাসসুম প্রভাকে ধন্যবাদ জানায় ভূমি মালিকরা।

দীর্ঘ যুগ ধরে ভূমি নামজারি করতে পথে পথে হয়রানির শিকার হতো ভূমি মালিকগণ, এখন আর হয়রানির শিকার হতে হবেনা। ফিরছে ভূমি মালিকদের সুদিন, ভূমি অফিসে জমির মালিকরা হচ্ছেন হয়রানিমুক্ত। অতি সহজেই নিজেই অনলাইনে আবেদন করে সরাসরি সঠিক কাগজপত্র প্রদর্শন করে নিজ নামে নামজারি খারিজ করে দিচ্ছেন অনলাইনে। ভূমি উন্নয়ন কর প্রদানের করতে দিতে হয়না ভূমি মালিকদের অতিরিক্ত টাকা। উপজেলা ভূমি অফিস সূত্রে জানা যায়, সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৩০ জুন, ২০২১ এর পর থেকে প্রচলিত (ম্যানুয়াল) পদ্ধতিতে আর ভূমি উন্নয়ন কর আদায় করা হবে না। এর পরিবর্তে অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর আদায় করা হবে। এর ফলে ভূমি মালিকগণ ইউনিয়ন ভূমি অফিসে না গিয়ে অর্থাৎ ঘরে বসে কিংবা দেশের বাইরে বসেও ভূমি উন্নয়ন কর প্রদান এবং দাখিলা সংগ্রহ করতে পারবেন।

গজারিয়া ইউনিয়নের ভূমি মালিক জানান,আমি অনলাইনে নামজারি খারিজের আবেদন করে সঠিক কাগজ পত্র প্রদর্শন করে অল্প সময়ের মধ্যে আমার ভূমির নামজারি করতে পেরেছি। কীর্তনখোলা গ্রামের কৃষক জানান,আগে ইউনিয়ন ভূমি অফিসে গিয়ে জমির ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করে দাখিলা নিতে হতো, দিতে হতো অতিরিক্ত টাকা।এখন ঘরে বসেই অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করি।
ইছাদিঘী আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো.বাবুল মিয়া জানান,জমি বেচাকেনা করলে আগে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হতো উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) হা-মীম তাবাসসুম প্রভা আমার সংবাদকে বলেন, সকল ইউনিয়নে মৌজাওয়ারী ভূমি মালিকের তথ্য অনলাইনে এন্ট্রি দেওয়ার কার্যক্রম চলছে। এ প্রচেষ্টা সফল করার জন্য আপনাদের সহযোগিতা একান্তভাবে কাম্য। সহযোগিতার ক্ষেত্রে নিম্নলিখিত কাগজপত্র সমূহ সাথে নিয়ে আসতে অনুরোধ করেছেন তিনি। কাগজপত্র সমূহ হলো- খতিয়ানের কপি, পূর্ববর্তী খাজনা আদায়ের রশিদ , জাতীয় পরিচয়পত্র ও সচল মোবাইল নাম্বার। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমি অফিসে যোগাযোগ করে আপনার ভূমি মালিকানা সংক্রান্ত তথ্য অনলাইনে এন্ট্রি দেওয়া নিশ্চিত করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে। অন্যথায় ভূমি উন্নয়ন কর প্রদানে জটিলতাসহ ভূমির মালিকানা সংক্রান্ত বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তিনি আরও বলেন, সঠিক উপায়ে জমির রেজিষ্ট্রেশন করুন, ঘরে বসে অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর বা খাজনা পরিশোধ করে অনলাইনেই রশিদ সংগ্রহ করুন, নিজের জমির মালিকানার সঠিক তথ্য নিজেই হালনাগাদ করুণ।

শেয়ার করুন!