স্থানীয় সরকারের নির্বাচনের বিষয়ে আগামী ২ সেপ্টেম্বর সিদ্ধান্ত: সিইসি



ফাইল ছবি।

সিএনবাংলাদেশ অনলাইন :

করোনার কারণে স্থগিত থাকা স্থানীয় সরকারের নির্বাচনের বিষয়ে আগামী ২ সেপ্টেম্বর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা।

তিনি জানান, আগামী ৪ সেপ্টেম্বর সিলেট আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সব ধরনের প্রস্তুতি শেষ করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, বর্তমানে করোনা সংক্রমন কিছুটা নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। তবে বিভিন্ন জেলায় বন্যা পরিস্তিতির সিৃষ্টি হয়েছে। সে কারণে আমরা ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভা যেগুলো মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়েছে সেগুলোর বিষয়ে আগামী ২ সেপ্টেম্বর বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেব।

এর আগে করোনা মহামারী বৃদ্ধির কারণে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে জটিলতা সৃষ্টি হয়। ইতিমধ্যে দেশের মোট ৪ হাজার ৫৭১টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে ৩ হাজার ৯৯৮ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপযোগী হয়েছে। যার মধ্যে মাত্র ২০৪ টিতে গত ২১ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় সারাদেশে প্রথম ধাপে ৩৭১টি ইউপিতে ভোট গ্রহণের কথা থাকলেও খুলনা, বাগেরহাট, যশোর-সাতক্ষীরাসহ দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় ১৭৩ টি ইউপির নির্বাচন স্থগিত করে ইসি।

একই সাথে ১১টি পৌরসভায়ও ভোটগ্রহণ করার কথা থাকলেও তার মধ্যে ৯টি পৌরসভায় কোভিটের কারণে নির্বাচন স্থগিত হয়ে যায়। এসব ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভায় কবে ভোট হবে তা নিয়ে ২ সেপ্টেম্বর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানান সিইসি।

শেয়ার করুন!