স্থানীয় সরকারের ২৮টি উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ বৃহস্পতিবার



ফাইল ছবি।
বিশেষ প্রতিবেদক/

দেশের বিভিন্ন এলাকায় স্থানীয় সরকারের ২৮টি উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণ বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে- ১২ উপজেলা পরিষদ, চার সিটি করপোরেশনের পাঁচ কাউন্সিলর, পাঁচ পৌরসভার এক মেয়র ও চার কাউন্সিলর এবং ছয় ইউনিয়ন পরিষদের বিভিন্ন পদ।

গত ২ সেপ্টেম্বর এসব নির্বাচনের আলাদা তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণে এরই মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নির্বাচনী মাঠে রয়েছেন। নির্বাচনের সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোট গ্রহণ চলবে।

পাঁচ পৌরসভার মধ্যে রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভায় মেয়র পদে ইভিএমে ভোট গ্রহণ হবে। বাকি চার পৌরসভায় ব্যালটের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করবে ইসি। এরই মধ্যে ভোটকেন্দ্রে ব্যালট পেপার পাঠানো হয়েছে। চার সিটি করপোরেশনের পাঁচটি সাধারণ ওয়ার্ডে ইভিএমে ভোট গ্রহণ হবে। এ ছাড়া ছয় ইউপির বিভিন্ন ওয়ার্ডে সমভোট প্রাপ্ত প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের মধ্যেও এদিন ভোট হবে। এই ভোট অনুষ্ঠিত হবে ইভিএমে।

বিএনপি কেন্দ্রীয়ভাবে এই ভোটে প্রার্থী না দিলেও অনেক স্থানে তাদের দলীয় পদধারীরা প্রার্থী হয়েছেন। রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে আওয়ামী লীগের আয়েজ উদ্দিন বিশ্বাসের বিরুদ্ধে প্রার্থী হয়েছেন সাবেক মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবুর স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস।

এ ছাড়া রয়েছেন পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া রুলু, সাবেক মেয়র ও জামায়াত নেতা আমিনুল ইসলাম। তবে পরে আমিনুল নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন, কিন্তু ব্যালট পেপারে তার নাম থাকবে।

মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়েছেন ভানুলাল রায়, বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রেম সাগর হাজরা ও আফজল হক। এ ছাড়া জাতীয় পার্টির প্রার্থী হয়েছেন মিজানুর রব।

শেয়ার করুন!