কমলগঞ্জে মন্ডপে মন্ডপে হামলা ও মূর্তি ভাঙচুর



ছবি-সিএনবাংলাদেশ।
আকাশ আহমেদ/কমলগঞ্জ প্রতিনিধি:

কুমিল্লায় পূজামন্ডপে পবিত্র কোরআন শরীফ অবমাননার প্রতিবাদে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বিভিন্ন পূজামন্ডপে হামলার ঘটনায় উপজেলার বিভিন্ন পূজামন্ডপের নিরাপত্তায় বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ২ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। বুধবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে রাত ১০টার মধ্যে দুটি মূর্তি এবং পাঁচটি মন্ডপে ভাঙচুর করা হয়। এঘটনায় রাতেই মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

সরেজমিনে দেখা যায়, কুমিল্লায় পুজামন্ডপে কোরআন শরীফ অবমাননার প্রতিবাদে বুধবার সন্ধার পর থেকে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। রাত সাড়ে ৮টায় মুন্সীবাজার ইউনিয়নের মঈডাইল পুজামন্ডপের মূর্তি, কামারছড়া চা বাগান পুজামন্ডপের মূর্তিসহ আরো তিনটি মন্ডপের মূর্তি ভাঙচুর করা হয়। একই সময়ে মুন্সীবাজার ইউনিয়নের বাসুদেবপুর পুজামন্ডপের গেইট, পরবর্তীতে পতনউষার ইউনিয়নের বৃন্দাবনপুর জগন্নাথ জিওর আখড়া পুজা মন্ডপের গেট, বৈরাগির চক সার্বজনীন পুজামন্ডপের গেট, মুন্সীবাজার রামপুর সার্বজনীন পুজা মন্ডপের গেট, লাইট ও নারায়ণক্ষেত শব্দকর একাডেমি পুজামন্ডপের গেট ভাঙচুর করে।

কমলগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র দাস বলেন, মুন্সীবাজার মইডাইল পূজামন্ডপের মূর্তি ভাঙচুর করা হয়েছে। এছাড়া বাসুদেবপুর পুজামন্ডপ, পতনউষার ইউনিয়নের বৃন্দাবনপুর জগন্নাথ জিওর আখড়া পুজা মন্ডপ ও বৈরাগির চক সার্বজনীন পুজামন্ডপের গেট ভাঙচুর করা হয়েছে। বুধবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে সাড়ে ১০ টার মধ্যে এসব ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া বৃহস্পতিবার সকালেও ৩টি মূর্তি ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে।

আলীনগর ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা ও ইউপি সদস্য তাজ উদ্দিন কামারছড়া চা বাগান পুজামন্ডপের মূর্তি ভাঙচুরের সত্যতা নিশ্চিত করেন। ঘটনার পর কমলগঞ্জ থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সচেষ্ট রয়েছে। এছাড়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি), উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক রফিকুর রহমানসহ উপজেলা প্রশাসন সরেজমিনে পরিদর্শন করছেন।
মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান ও কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল নির্বাচনী এলাকার সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইয়ারদৌস হাসান বলেন, পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশেকুল হক বলেন, হামলা ও ভাঙচুরের কথা শুনেছি। আমরা সবগুলো স্থান পরিদর্শন করছি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তাছাড়া পূজামন্ডপের নিরাপত্তা রক্ষায় সকাল থেকে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে।

শেয়ার করুন!