স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে ফেললেন স্ত্রী



ফরিদপুর প্রতিবেদক/

ফরিদপুরের মধুখালীতে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলেছেন তার স্ত্রী। আহত ওই স্বামীকে ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপরদিকে পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত ওই নারীকে থানায় আটক করে রেখেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে মধুখালী পৌরসভার চার নম্বর ওয়ার্ডের পশ্চিম গাড়াখোলা মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, গাড়াখোলার মৃত আ. সাত্তার বিশ্বাসের ছেলে ইলেক্ট্রিশিয়ান রাসেল বিশ্বাসের (৫৫) তৃতীয় স্ত্রী টুটু খাতুন (৬০)। অভাবের কারণে রাসেলের আগের দুই স্ত্রী তাকে ত্যাগ করে। এরপর তিনি তার চেয়ে বয়সে বড় কামালদিয়া গ্রামের টুটু খাতুনকে বিয়ে করেন। তারা নিঃসন্তান দম্পতি ছিলেন।

রাসেলের ছোট ভাই তোফাজ্জেল বিশ্বাস তোতা (৪০) বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১০টার পর তার ভাইয়ের ঘর থেকে গোঙানোর আওয়াজ পেয়ে দেখেন তার ভাইয়ের পুরুষাঙ্গ কেটে রক্ত বের হচ্ছে। এরপর তারা স্থানীয় ইউপি সদস্যকে খবর দেন।

মধুখালী পৌরসভার চার নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলার আনিসুর রহমান লিটন জানান, খবর পেয়ে রাত দুইটার দিকে তিনি ঘটনাস্থলে যান এবং আহত রাসেলকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন।

তিনি জানান, জিজ্ঞাসাবাদে টুটু খাতুন স্বামীর পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলার কথা স্বীকার করেন। পরে পুলিশ ডেকে তাকে সোপর্দ করা হয়।

এদিকে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, রাসেলের পুরুষাঙ্গের দুই- তৃতীয়াংশ কেটে গেছে। তার অবস্থা গুরুতর।

মধুখালী থানার এসআই অজয় বালা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গভীর রাতে খবর পেয়ে পুলিশ রাসেলকে হাসপাতালে পাঠায় এবং তার স্ত্রী টুটু খাতুনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় এখনো কেউ থানায় মামলা করেনি বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন!