ধর্ম অবমাননার অভিযোগে রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের সদস্য প্রীতম দাশ গ্রেপ্তার



মৌলভীবাজার প্রতিনিধি/

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ইসলাম ধর্ম নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কটুক্তিমূলক পোস্ট দেওয়ার অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের জাতীয় সমন্বয়ক কমিটির সদস্য প্রীতম দাশকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাত ৭ টার দিকে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার পৌর এলাকার ভানুগাছ রোডের একটি বাসা থেকে প্রীতম দাশকে গ্রেপ্তার করে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ।

পুলিশ জানায়, প্রীতম দাশ বিভিন্ন সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ব্যক্তিগত আইডি থেকে আক্রমনাত্বক ও ধর্মীও উস্তানিমুলক পোস্ট ও শেয়ার করে আসছে। এর কারণে এলাকায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট ও ধর্মীও উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। তার দেওয়া ধর্মীও উস্কানিমুলক আক্রমানাত্বক একটি পোস্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় মানুষের মাঝে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ধর্মীও অনুভুতিতে আঘাত করায় প্রীতম দাশের বিরুদ্ধে স্থানীয়রা শ্রীমঙ্গলে প্রতিবাদ সমাবেশ করে। পরে শ্রীমঙ্গল থানায় মাহবুব আলম ভূইয়া গত ৪ সেপ্টম্বর ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার পর থেকে প্রীতম দাশ পালিয়ে বেড়াচ্ছিল। পলাতক অবস্থায় তাকে শহরের ভানুগাছ রোডের একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারকৃত প্রীতম দাশ রাষ্ট্র সংস্কার আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য। প্রীতম দাশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম তার ফেসবুক আইডি থেকে শান্তির ধর্ম ইসলামের জুম্মার নামাজ, মুসল্লি, আযান ও ইমামদের নিয়ে কটূক্তি করেন।

শেয়ার করুন!