নারায়ণগঞ্জে নববধূকে গলা কেটে হত্যা, স্বামীর যাবজ্জীবন



নারায়ণগঞ্জ/প্রতি‌নি‌ধি/

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে নববধূকে হত্যার দায়ে শামীম (২৫) নামে এক যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মুন্সী মশিয়ার রহমান আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত শামীম (২৫) রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা ইউনিয়নের পাচাইখা গ্রামের মনির মিয়ার ছেলে। তিনি নিজ এলাকায় এমব্রয়ডারি মেশিন অপারেটরের কাজ করতেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৩ আগস্ট শামীমের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় একই ইউনিয়নের মনির হোসেনের মেয়ে শিউলি আক্তারের। বিয়ের দু’দিন না যেতেই শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সাথে বনিবনা না হওয়ায় নববধূ শিউলি ও তার স্বামী শামীমের মধ্যে পারিবারিক কলহ সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে বিয়ের মাত্র সাতদিনের মাথায় স্বামী শামীম পরিকল্পিতভাবে ৩০ আগস্ট রাতে শিউলিকে বটি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করেন। পরেরদিন শামীমসহ অজ্ঞাতনামা আরও তিন চারজনকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেন নিহত শিউলির মা আমেনা বেগম।

এই মামলায় পুলিশ আসামি শামীমকে গ্রেপ্তার করার পর তিনি হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। পরবর্তীতে তদন্তকারি কর্মকর্তা আসামি শামীমকে একমাত্র দোষী সাব্যস্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করলে মামলার বিচারকাজ শুরু হয়। এগারোজন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত এই রায় দেন।

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো.আসাদুজ্জামান জানান, আসামির বয়স কম হওয়ায় এবং চার বছর কারাবাস ভোগ করার কারণে মৃত্যুদণ্ডের সাজা কমিয়ে আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন।

শেয়ার করুন!